কিশোরগঞ্জে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিলেন ইউপি চেয়ারম্যান- আলহাজ্ব ফজলার রহমানমোঃ সাহেব আলীঃ কিশোরগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি 

পি.এস.সি,জে এস সি, এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিলেন নীলফামারী জেলাধীন কিশোরগঞ্জ উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়ন পরিষদের ০৬ বারের সফল চেয়ারম্যান জনাব আলহাজ্ব ফজলার রহমান।

 

বুধবার বিকেলে ইউনিয়ন পরিষদের পাশেই আনুষ্ঠানিকভাবে ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার মোট ১০১ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে এই সংবর্ধনা দেয়া হয়।

এসময় অনুষ্ঠানের সভাপতি আলহাজ্ব ফজলার রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আহসান আদেলুর রহমান আদেল, জাতীয় সংসদ সদস্য নীলফামারী-০৪,বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নুরে আলম সিদ্দিকী উপজেলা নির্বাহী অফিসার কিশোরগঞ্জ,নীলফামারী।এছাড়াও উক্ত মহতী অনুষ্ঠানে ইউনিয়নের সকল ইউপি সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

এসময় চেয়ারম্যানের পক্ষ হতে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি সহ সকল আমন্ত্রিত অতিথিদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে আসা গেল এস এস সি পরিক্ষায় জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী মোছাঃ নুশরাত জাহান নিশাত মনি ইউপি চেয়ারম্যান জনাব আলহাজ্ব ফজলার রহমানের এমন আয়োজনকে সাধুবাদ জানানোর মাধ্যমে এই মহতী উদ্যোগ আগামী দিনেও ভালো ফলাফল অর্জনের অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে বলেও তুলেধরেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত উপজেলা নির্বাহী অফিসার তার বক্তব্যে বলেন, আমাদের ভালো পড়াশুনার জন্য তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকলেও বড়ভিটা অনেকবেশি কোচিং সেন্টার চোখে পড়ার মতো তবে কি স্কুল কলেজ গুলোতে ভালো পড়াশুনা হয়না মর্মেও তুলে ধরে তিনি শিক্ষার্থীদের স্কুলমুখী হওয়ার নির্দেশনা প্রদান করেন।

ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম তার ব্যাক্তি জীবনের উদাহরণ তুলে ধরে প্রতিটি অবিভাবকদের সন্তানের ভবিষ্যৎ জীবন গড়তে তাদের সঠিক পথে পরিচালিত করার কথাও তুলে ধরে বলেন, আমি চাই আমার ইউনিয়নের মেধাবীরা ভালো জায়গায় পৌঁছে এলাকার নাম উজ্জল করুক।

বক্তব্যে প্রধান অতিথি আহসান আদেলুর রহমান আদেল বলেন, একজন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের শিক্ষাবান্ধব এই উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসনীয়। প্রত্যেক ইউপি চেয়ারম্যানকেই এমন অনুপ্রেরণামূলক আয়োজন করা উচিত।সর্বপরি মাদক, জুয়া কিংবা বাল্যবিবাহ মুক্ত বড়ভিটাকে মডেল ইউনিয়ন রুপেও তুলে ধরেন তিনি।

অনুষ্ঠানের সভাপতি আলহাজ্ব ফজলার রহমান তার উন্নায়ন মূলক কর্মকাণ্ড গুলো তুলে ধরার মাধ্যমে ক্ষুধা দারিদ্র্য মুক্ত স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে বড়ভিটা ইউনিয়নকে মডেল একটি ইউনিয় হিসেবে ফুটিয়ে তোলার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন। একই সাথে সকল কৃতি শিক্ষার্থীদের আগামীর ভবিষ্যৎ যেন সুন্দর হয় পিছিয়ে পড়া অন্য সকল শিক্ষার্থীরাও যেন এমন কৃতিত্বের জায়গায় আসতে পারেন সেই কামনায় তিনি অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ