মোঃ জাফর ইকবাল রানা

স্টাফ রিপোর্টারঃদৈনিক সোনালী দর্পণ

গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার খলশী ও ফুলবাড়ি গ্রামে প্রথমবারের মত মসলা জাতীয় ফসল জিরা পরীক্ষামূলক চাষ ও নতুন স্বপ্ন নিয়ে ছুটে চলেছে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার গবেষক কৃষক।

বারি জিরা-১ জাতের জিরা চাষে সফলতা অর্জনের স্বপ্ন দেখছেন এই স্থানীয় চাষীরা।
তারা আশা করছেন এই জিরা চাষে বেশ ভালো অঙ্কের মুনাফা অর্জন করা সম্ভব । গাঢ় সবুজ রঙ্গের জিরা গাছ দেখতেও অনেক আকৃষ্ট।

জিরা চাষ প্রথমবার হলেও কৃষিবিভাগের সহযোগিতা পেলে আশার আলো বয়ে আনবে বলে জানিয়েছেন কৃষক মোঃএতবড় আলী।

খুলসী গ্রামের জিরা চাষী জানান, ১০ শতক জমিতে পরিক্ষামূলক চাষ করে সফল হয়েছেন তিনি। চাষের পরিধি আরও বাড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করে তিনি বলেন, বাজারে জিরার ব্যাপক মূল্য ও চাহিদা থাকায় শুধু গোবিন্দগঞ্জেই নয় এদেশের যুবকদের অনেকাংশ বেকারত্ব দূরীকরণের আকৃষ্টতা বাড়বে এই জিরা চাষ।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহামুদ রেজা মুন্না বলেন, প্রথমবারের মত জিরা চাষে সার্বক্ষণিক পরামর্শ ও প্রযুক্তিগত সাহায্য দিয়ে যাচ্ছে কৃষি অফিস।

তিনি বলেন, ১০ শতক জমি থেকে সম্ভাব্য ৪ থেকে ৫ কেজি জিরা পেতে পারেন কৃষক।
এতে বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরীর পাশাপাশি জিরা আমদানী নির্ভরতা কমিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয় অনেকটাই সংকুচিত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ